Posts

Showing posts from February, 2013

10th BCS Preliminary Test

Sample Quiz about Bangladesh

আবেগ সম্পন্ন রোবট

Image
বছরের পর বছর ধরে মানুষের মতো রোবট তৈরির প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে মানুষ। একটি রোবট অনেক কাজ করতে সক্ষম হলেও মানুষের মতো চিন্তা বা অনুভূতি থাকছে না তার। আর এই একটি জায়গাতেই রোবোটিক গবেষণা আটকে আছে বলে মানছেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু সেই আটকে থাকার দিন শেষ হলো বলে। মানুষের মতোই আবেগসম্পন্ন রোবট তৈরির দিকে অনেকটাই এগিয়ে গেছেন বিজ্ঞানীরা।
এই রোবট মানুষের মতো রোবটও সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা, রাগ-উত্তেজনা, ভয়ভীতি, গর্ব-অহংকার প্রভৃতি অনুভূতির প্রকাশ ঘটতে পারবে। রোবটের দেখভালের কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিদের সঙ্গে পারস্পরিক ক্রিয়া করতে গিয়ে সব ধরনের আবেগ-অনুভূতি ব্যক্ত করতে সম্পন্ন এমন রোবটের আদিরূপ চূড়ান্ত করে ফেলেছেন গবেষকরা।
ব্রিটেনের হার্ট ফোর্ডশায়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. লোলা কানামেরোর নেতৃত্বে এবং ইউরোপজুড়ে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও রোবটিক কোম্পানির একটি কনসোর্টিয়ামের সহযোগিতায় এমন রোবট সৃষ্টি করা হয়েছে। অন্যান্য রোবটের সঙ্গে এই রোবটের পার্থক্য হলো, এগুলো তাদের শারীরিক অভিব্যক্তির মধ্য দিয়ে আসক্তি বা অনুরাগ গড়ে তোলে ও অন্যান্য আবেগ অনুভূতি প্রকাশ ঘটায়।
ইউরোপীয় কমিশনের অর্থায়নে …

গুগলের জাদুর চশমা

Image
গুগল মানেই চমকে দেওয়া সব উদ্ভাবনের জনক। এবার তাই বাস্তবতাকে চোখের সামনেই এনে হাজির করছে গুগল। আর তা করবে একটি হালকা অবয়বের ফ্যাশনেবল চশমা। সংবাদ মাধ্যম সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।
এ চশমা পুরোটাই নিয়ন্ত্রিত হবে ইন্টারনেটের মাধ্যমে। এর মাধ্যমে ১৪ ধরনের তাৎক্ষণিক এবং প্রাত্যহিক সেবা পাওয়া যাবে। তবে আপাতত আবহাওয়া, পথের অবস্থান, ইমেইল, ভয়েস কল, গুগল টক, ভিডিও কনফারেন্স এমনকি বিনোদনে গান ও ভিডিও চিত্রও দেখা সম্ভব। আর এ সেবাগুলোর সবটাই মিলবে চলতি পথেই।
একে বিশেষজ্ঞরা 'স্ট্রিট গাইড' হিসেবেও অভিহিত করেছেন। একজন অবিচ্ছেদ্য সঙ্গীর মতো এ চশমা হয়ে উঠবে প্রকৃত বন্ধু। মনে করিয়ে দেবে কখন, কোথায় কার সঙ্গে মিটিং আছে। আর এ মুহূর্তে আবহাওয়ার আগাম পূর্বাভাসও জানিয়ে দেবে। তাই আবহাওয়া খারাপ হতে পারে এমন অবস্থায় না বেরিয়ে কখন মিটিং করলে সুবিধা হবে তাও জানিয়ে দেবে 'গুগল গ্লাস'।
এ মুহূর্তে গুগলের গবেষণা কেন্দ্র 'এঙ্ ল্যাবে' এ পণ্যের পরীক্ষামূলক মডেল তৈরি করা হয়েছে। এখন ভোক্তাদের মতামত আর সুবিধা-অসুবিধাগুলোকে সমন্বয়ের জন্য এ সম্পর্কে তথ্য দেওয়া হচ্ছে।
গুগল+ এ খবর ছড়িয়ে পড়ার …

চালকবিহীন গাড়ী

Image
বিশ্বখ্যাত ইন্টারনেট সার্চ ইঞ্জিন গুগল এবার উদ্ভাবন করছে চালকবিহীন গাড়ি। ব্যতিক্রমী এ গাড়িতে রয়েছে ভিডিও ক্যামেরা, রাডার সেন্সর এবং লেজার রেঞ্জ ফাইন্ডার। এসব ব্যবহার করে রাস্তায় থাকা অন্যান্য গাড়ি এবং বস্তুর অবস্থান শনাক্ত করবে চালকবিহীন গাড়িটি। গাড়িটি এখন পরীক্ষা-নিরীক্ষার শেষ পর্যায়ে। গাড়ি চালানোর জন্য চালকের প্রয়োজন নেই। রাস্তায় অন্য গাড়িকে পাশ কাটিয়ে এগিয়ে যাবে নিশ্চিন্তে।
সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদা রাজ্য গুগলকে এই গাড়ির লাইসেন্সও দিয়ে দিয়েছে। লাইসেন্স পাওয়ার পর গুগল প্রথম যে চালকবিহীন গাড়িটি রাস্তায় নামাচ্ছে সেটি টয়োটা কোম্পানির। গাড়িতে চালকবিহীন প্রযুক্তি যোগ করছে গুগল।
আরও অনেক গাড়ি কোম্পানি অবশ্য নেভাদায় চালকবিহীন গাড়ির লাইসেন্স পেতে আবেদন জানিয়েছে। গুগলের ইঞ্জিনিয়াররা ইতোমধ্যে ক্যালিফোর্নিয়ার রাস্তায় এই গাড়ি পরীক্ষা করেছেন। তখন অবশ্য গাড়ির মধ্যে একজন অভিজ্ঞ চালক ছিলেন। বাড়তি সতর্কতা হিসেবে তাকে রাখা হয়েছিল।
বিশেষ করে কোনো কারণে সফটওয়্যার যদি কাজ না করে, তাহলে যেন চালক গাড়ির নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেন। তবে আশার কথা হচ্ছে, গাড়িটি চালানোর সময় কোন…

বার বার মুখে ঘা অবহেলা নয়

মুখের ভেতরের ঝিল্লি আবরণ বা মিউকাস মেমব্রেন কোনো কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হলে মুখে ঘা দেখা দেয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এটি মারাত্মক রোগ নয়। এমনিই সেরে যায়। কিন্তু বারবার মুখে ঘা হলে এবং তা না সারলে অবশ্যই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন। ঘা এর আকার ও প্রকৃতি দেখে অনেক সময় বোঝা যায়, এটি ক্যানসার কি না। 
সাধারণত অজান্তে মুখ বা জিভে কামড় পড়লে, শক্ত টুথব্রাশ বা সুচালো বাঁকা দাঁতের আঘাতে, দাঁত ক্ষয়রোগ এবং মুখের পরিচ্ছন্নতা বজায় না থাকলেই ঘন ঘন মুখে ঘা হয়ে থাকে। এ ছাড়া নানা ধরনের ভাইরাস বা ছত্রাক সংক্রমণ, ভিটামিনের অভাব, বিভিন্ন ওষুধের প্রতিক্রিয়ায় বা মুখের ক্যানসারেও ঘা হতে পারে।
তবে সাধারণত সবচেয়ে বেশি যে কারণে মুখে ঘা হয়, তাকে বলে অ্যাপথাস আলসার। জিব, মাড়ি ও মুখের ভেতর দিকে অনেকটা ব্রণের মতো দেখতে সাদা ফুসকুড়ি বের হয়। যার চারদিকে লাল বৃত্ত আছে—এমন ঘাকেই অ্যাপথাস আলসার বলে। এটি বারবার হয় এবং বেশ বেদনাদায়ক।
করণীয়:
-অতিরিক্ত ঝাল এড়িয়ে চলুন।
-প্রচুর পানি পান করুন।
-ঈষদুষ্ণ লবণ পানি দিয়ে বারবার কুলি করুন।
-মেডিকেটেড মাউথওয়াশ বা অ্যান্টিসেপটিক জেল ব্যবহার করতে পারেন।
-প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ…

১ পাউন্ড ওজন কমাতে করণীয়

Image
প্রাপ্তবয়স্ক নারী-পুরুষের এক পাউন্ড ওজন কমাতে পোড়াতে হবে প্রায় ৩৫০০ ক্যালরি। এবার আসুন, একটু সহজ অঙ্ক কষে নিই।
১০০ ক্যালরি কমাতে পারবেন যদি আপনি ১ মাইল হাটেন বা জগিং করেন।
৩৫০০ ক্যালরি পোড়াতে আপনাকে হাঁটতে হবে ৩৫ মাইল।
৩০মিনিট করে আপনি যদি ঘণ্টায় চার মাইল বেগে সপ্তাহে অন্তত পাঁচ দিন হাঁটেন, তবে মোট হাঁটার পরিমাণ ১০ মাইল। প্রায় ১০ দিনের মাথায় আপনার ৩৫০০ ক্যালরি পোড়ানোর সমপরিমাণ হাঁটা হবে অর্থাৎ এক পাউন্ড ওজন কমবে।
২৫০ ক্যালরি আপনি যদি প্রতিদিনের খাদ্যতালিকা থেকে বিয়োগ করে দেন তবে ৩৫০০ ক্যালরি বিয়োগ করতে সময় লাগবে দুই সপ্তাহ। যেমন: ২৫০ ক্যালরি আছে। আধকাপ আইসক্রিমে।
প্রাপ্তবয়স্কদের ওজন কমানোর সঙ্গে হাঁটা ও খাবারের সম্পর্কের হিসাবটি দিয়েছেন।  ডা. নাজমুল কবীর কোরেশী। সূত্র: হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুল।[দৈনিক প্রথম আলো থেকে সংগৃহীত]

টিভির প্রতি শিশুর আসক্তি ভাল নয়

আপনার শিশু কি সারাক্ষণ টেলিভিশন (টিভি) দেখতে খুব পছন্দ করে? টিভি বন্ধ করলেই কান্না জুড়ে দেয়? টিভির প্রতি শিশুর এই অতি আসক্তি কিন্তু আপনার সন্তানের পরবর্তী জীবনে বিপদ ডেকে আনতে পারে।
নিউজিল্যান্ডের একদল গবেষক বলছেন, টেলিভিশনে অতি-আসক্ত শিশুদের ভবিষ্যতে দাগি অপরাধীতে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এ ছাড়া তাদের মধ্যে আগ্রাসী প্রবণতাও বেড়ে যায়।
তবে শিশুদের আচরণে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে পরামর্শও দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। যুক্তরাষ্ট্রের একদল গবেষক বলছেন, টেলিভিশনে মারামারি বা সহিংস দৃশ্যের পরিবর্তে শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান দেখতে পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের অনুপ্রাণিত করতে হবে।
নিউজিল্যান্ডের ওটাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা ১৯৭০-এর দশকে জন্মগ্রহণকারী এক হাজার শিশুর ওপর গবেষণা চালান। তাদের ৫ থেকে ১৫ বছর বয়স পর্যন্ত টিভি দেখার অভ্যাস এবং ২৬ বছর বয়স পরবর্তী জীবনাচরণের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করা হয়। এতে দেখা যায়, শৈশবে নিয়মিত টিভি দেখায় অভ্যস্ত শিশুদের ৩০ শতাংশ পরবর্তী জীবনে সমাজবিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকে। মার্কিন সাময়িকী পেডিয়াট্রিকস ওই গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে আরও বলা হয়, …

উম্মুক্ত “আমার বর্ণমালা”

Image
আজ ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে উন্মুক্ত হল ইউনিকোডে প্রমিত বাংলা ফন্ট ‘আমার বর্ণমালা’। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২১ ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে ‘আমার বর্ণমালা’ ফন্ট উদ্বোধন করেন।
সরকারি উদ্যোগে তৈরি হয়েছে ইউনিকোড বাংলা ফন্ট। সবার জন্য উন্মুক্ত ‘আমার বর্ণমালা’ ফন্ট তৈরিতে কাজ করছে বাংলা একাডেমী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাফিকস ডিজাইন বিভাগ ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম ।
দেশে বর্তমানে অনলাইনে ভাষাচর্চার জন্য একাধিক বাংলা ফন্ট থাকলেও সেগুলো তৈরি করা হয়েছে বাংলা একাডেমীর অনুমোদন ছাড়া। এসব ফন্টে যুক্তবর্ণ ও অন্যান্য বিষয় ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু সমস্যা রয়েছে। ফলে ভাষা প্রমিতকরণের কাজটি এ ক্ষেত্রে অসম্পূর্ণ।
Web Site:http://amarbornomala.gov.bd/ Font Download: http://www.amarbornomala.gov.bd/fonts/details/1

রোবটের ব্যবহার

Image
যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহৃত রোবটঃ রোবট সম্পর্কে বারবারই বলা হচ্ছে, আধুনিক বিজ্ঞানের অন্যতম বিস্ময়কর আবিষ্কার রোবট। সাধারণ কথায় রোবট মানুষের তৈরি যন্ত্র ছাড়া আর কিছুই নয়। তবে অন্যান্য যন্ত্রের চেয়ে রোবট একেবারেই আলাদা ও ভিন্ন কিছু। আর সে কারণেই এটি নিয়ে এত আলোচনা আর জল্পনা-কল্পনা।
বছরের পর বছর ধরে বিজ্ঞানীদের অক্লান্ত চেষ্টায় রোবটিক্স বিজ্ঞান, বিজ্ঞানের একটি আলাদা শাখা হিসেবে বিকাশ লাভ করেছে। বর্তমানে মানুষ বিভিন্ন জটিল সব কাজে রোবটকে ব্যবহার করেছ। কারণ রোবটের খিদে পায় না, বিশ্রামের দরকার নেই, কোন রকম অভিযোগও নেই এবং সবচেয়ে বড় কথা তাদের কোনো ভয় নেই। আর এ জন্যই বিজ্ঞানীরা যুদ্ধক্ষেত্রে রোবট ব্যাপকভাবে ব্যবহার করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কারণ যুদ্ধক্ষেত্রে একটি সৈন্যের মৃত্যু হওয়া আর একটি রোবট ধ্বংস হওয়া এক কথা নয়। মানুষের জীবন অমূল্য। বিজ্ঞানীদের ধারণা,২০২০ সালের দিকে রোবট বিপ্লব ঘটবে। আমেরিকা আনেক আগেই 'প্রিভেটর' নামে এ ধরনের একটি রোবটের সফল পরীক্ষা সম্পন্ন করে। আমেরিকা 'গ্লোবাল হক' নামের আরও একটি রোবট বিমান বর্তমানে আফগানিস্তান ও ইরাকের যুদ্ধ ক্ষেত্…